আত্মঘাতী বোমা হামলায় কাবুলে ১০ জন নিহত

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে আত্মঘাতী বোমা হামলায় অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। এছাড়া আরও অন্তত ১৯ জন গুরুতর আহত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে তারা। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে আলজাজিরা এ খবর জানিয়েছে।

স্থানীয় সময় বুধবার (২৯ নভেম্বর) রাতে এ হামলা চালানো হয়।

এদিকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র নাজিব দানিশ বলেন, ব্রিটিশদের নিরাপত্তা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান জি-ফোর-এস এর ঘাঁটির কাছাকাছি এ বিস্ফোরণ ঘটে। কাবুল থেকে আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলে যাওয়ার প্রধান সড়কের পাশেই মূলত হামলাটি চালানো হয়।

কর্মকর্তারা বলছে, এক আত্মঘাতী হামলাকারী বিস্ফোরণ ঘটানোর পরপরই সেখানে থাকা নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে লিপ্ত হয় হামলাকারী অন্য একটি দল।
পুলিশ প্রধানের মুখপাত্র বসির মুজাহিদ বলেন, এলাকাটির নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে নিরাপত্তারক্ষীরা এবং বন্দুকযুদ্ধ থেমে গেছে।

এখনও পর্যন্ত হামলার দায় স্বীকার করেনি কোনও গোষ্ঠী। তবে ধারণা করা হচ্ছে, তালেবান কিংবা আইএস এই হামলা চালিয়ে থাকতে পারে।

আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি জাতিসংঘের এক কনফারেন্সে তালেবানদের সাথে শান্তিচুক্তির ঘোষণা দেন। এই ঘোষণার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই এই হামলা হয়।
এর আগে বুধবার রাতে হামলার পরপরই এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বুধবার রাতে বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল। এতে ব্যাপক হতাহতের আশঙ্কা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দেশটি কর্মকর্তারা।

এএফপির প্রতিবেদনে হামলাটিকে গাড়ি বোমা হামলা হিসেবেও উল্লেখ করা হয়েছিল।