আবারো শীর্ষ ধনী জেফ বেজোস

বিশ্বের সেরা ধনীর তালিকায় আবারো শীর্ষ অবস্থানে রয়েছেন জেফ বেজোস। শীর্ষ ধনীর তালিকায় নিজের অবস্থান ধরে রেখেছেন তিনি। অনলাইন বিক্রয় প্রতিষ্ঠান অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা বেজোসের এক বছরের ব্যবধানে সম্পদ বেড়েছে ১ হাজার ৯০০ কোটি ডলার।

ফোর্বস-এর হিসাবে ২০১৮ সাল শেষে জেফ বেজোসের সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ১০০ কোটি ডলারে। আগের বছর যার পরিমাণ ছিল ১১ হাজার ২০০ কোটি ডলার। ফোর্বস-এর এবারের তালিকায় ৯ হাজার ৬৫০ কোটি ডলারের সম্পদ নিয়ে বিশ্বসেরা ধনীর দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন মাইক্রোসফটের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস। আর তৃতীয় স্থানে আছেন বিনিয়োগ গুরু ওয়ারেন বাফেট, যাঁর সম্পদের পরিমাণ ৮ হাজার ২৫০ কোটি ডলার।

তবে গত বছর বিশ্বায়নবিরোধী তৎপরতাসহ নানা কারণে বৈশ্বিক অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এতে বছরজুড়েই বিশ্বের বিভিন্ন শেয়ারবাজারে শেয়ারের দামের উত্থান–পতন ঘটেছে। ফোর্বস বলছে, এই দশকে কেবল দ্বিতীয়বারের মতো ২০১৯ সালের তালিকায় শতকোটি ডলারের মালিকের সংখ্যা যেমন কমেছে, তেমনি তাঁদের মোট সম্পদের পরিমাণও কমেছে। ২০১৯ সালের ফোর্বস–এর তালিকায় শতকোটি ডলারের মালিকের সংখ্যা ২ হাজার ১৫৩, সংখ্যার বিচারে আগের বছরের চেয়ে তা ৫৫ জন কম।

এবারের তালিকায় থাকা ২ হাজার ১৫৩ জন অতি ধনীর মোট সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৮ লাখ ৬৯ হাজার ৯৯৯ কোটি ডলার, যা ২০১৮ সালের তুলনায় ৪০ হাজার কোটি ডলার কম। এ ছাড়া গত বছরের তালিকা থেকে এ বছর বাদ পড়েছেন ১১ শতাংশ বা ২৪৭ জন ধনী।

এবারের তালিকার চতুর্থ স্থানে আছেন বিলাসবহুল পণ্য এলভিএমএইচের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বার্নার্ড আর্নল্ড। তাঁর সম্পদের পরিমাণ ৭ হাজার ৬০০ কোটি ডলার। পঞ্চম স্থানে আছেন মেক্সিকোর শীর্ষ ধনী ও লাতিন আমেরিকার বৃহত্তম মোবাইল ফোন কোম্পানি আমেরিকা মোভিলের চেয়ারম্যান কার্লোস স্লিম। তাঁর সম্পদের পরিমাণ ৬ হাজার ৪০০ কোটি ডলার।

ষষ্ঠ স্থানে আছেন ইউরোপের অন্যতম ধনী ও মাদ্রিদভিত্তিক জারা ফ্যাশন চেইনের মূল কোম্পানি ইনডিটেক্সের মালিক আমানসিও ওরতেগা। তাঁর সম্পদের পরিমাণ ৬ হাজার ২৭০ কোটি ডলার। সপ্তম স্থানে আছেন সফটওয়্যার কোম্পানি ওরাকলের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা ল্যারি এলিসন, যাঁর সম্পদের পরিমাণ ৬ হাজার ২৫০ কোটি ডলার। অষ্টম স্থানে আছেন ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান মার্ক জাকারবার্গ। তাঁর সম্পদের পরিমাণ ৬ হাজার ২৩০ কোটি ডলার। গত বছর তথ্য ফাঁসসহ নানা অভিযাগ ওঠায় এ বছর তাঁর সম্পদের পরিমাণ ১ হাজার ৮৭০ কোটি ডলার কমেছে।

২০১৯ সালের তালিকায় নবম স্থানে আছেন আর্থিক তথ্য ও মিডিয়া কোম্পানি ব্লুমবাগের সহপ্রতিষ্ঠাতা মাইকেল ব্লুমবার্গ। তাঁর সম্পদের পরিমাণ ৫ হাজার ৫৫০ কোটি ডলার। দশম স্থানে আছেন গুগলের মূল কোম্পানি অ্যালফাবেটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ল্যারি পেজ। তাঁর সম্পদের পরিমাণ ৫ হাজার ৮০ কোটি ডলার।

 

আজকের বাজার /মিথিলা