বুড়িগঙ্গায় ট্রলার ডুবি, নিখোঁজ ৫

জেলার সদর উপজেলার ফতুল্লায় বুড়িগঙ্গা নদীতে বালুবাহী ট্রলারের ধাক্কায় যাত্রীবাহী একটি ট্রলার ডুবে পাঁচ যাত্রী নিখোঁজ হয়েছেন। এর মধ্যে সঞ্জয় (৫৫) নামের একজনের নাম জানা গেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ১৫ জন যাত্রী।

রোববার রাতে সদর উপজেলার এনায়েতনগর ইউনিয়নের ধর্মগঞ্জ এলাকায় ট্রলারডুবির এই ঘটনা ঘটে। নিখোঁজদের সন্ধানে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ও নৌ-পুলিশ উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।

নারায়ণগঞ্জের পাগলা নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. সামসুর রহমান জানান, রোববার রাতে ঢাকার কেরানীগঞ্জের কুইচ্চামার এলাকা থেকে নারী ও শিশুসহ ৫১ জন যাত্রী নিয়ে একটি ট্রলার ফতুল্লার পাগলা ঘাটের উদ্দেশে রওয়ানা করে। রাত সাড়ে নয়টার দিকে ট্রলারটি ধর্মগঞ্জ এলাকায় এলে সদরঘাট থেকে ছেড়ে আসা তাকওয়া নামের মেঘনাগামী একটি বালুবাহী ট্রলার যাত্রীবাহী ট্রলারটিকে ধাক্কা দেয়। এসময় যাত্রীবাহী ট্রলারটি ডুবে যায়। পরে বেশিরভাগ যাত্রী তীরে উঠে আসলেও পাঁচজন নিখোঁজ হন। আহত হন ১৫ জন। তাদের আশপাশের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
ডুবে যাওয়া ট্রলারটির যাত্রীরা সবাই মাটিকাটার শ্রমিক। তারা কেরাণীগঞ্জে কাজ শেষে পাগলায় যার যার বাড়িতে ফিরছিলেন।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের নারায়ণগঞ্জ অঞ্চলের উপ-সহকারী পরিচালক আবদুল্লাহ আল আরেফিন জানান, নিখোঁজদের সন্ধানে আমাদের ডুবুরি দল নদীতে অনুসন্ধান চালিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি ডুবে যাওয়া ট্রলারটি উত্তোলনের চেষ্টাও অব্যাহত রয়েছে