আটালান্টাকে হারিয়ে ইতালিয়ান কাপের শিরোপা জিতলো জুভেন্টাস

ডুসান ভøাহোভিচের একমাত্র গোলে আটালান্টাকে হারিয়ে ইতালিয়ান কাপের শিরোপা জয় করেছে জুভেন্টাস। এর মাধ্যমে আটালান্টার ছয় যুগেরও বেশী সময় ধরে শিরোপা অপেক্ষা আরো বাড়লো।
সার্বিয়ান স্ট্রাইকার ভøাহোভিচের চতুর্থ মিনিটের গোলে জুভেন্টাসের রোমের ফাইনালে ১৫তম কাপ শিরোপা নিশ্চিত হয়।
জানুয়ারির শেষ থেকে মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রির দল মাত্র তিনটি ম্যাচে জয়ী হয়েছে। কিন্তু তারপর আটালান্টা ফর্মহীনতা ভোগা জুভেন্টাসকে প্রতিরোধ করতে পারেনি। দ্বিতীয়ার্ধে ভøাহোভিচের একটি গোল অফসাইডের কারনে বাতিল হয়ে যায়। নাহলে ব্যবধান হয়তো আরো বাড়তে পারতো।
এই শিরোপার মাধ্যমে জুভেন্টাসের তিন বছরের শিরোপা খরা কাটলো। সাম্প্রতিক সময়ে মিলানের দুই ক্লাব ও নাপোলির কাছে অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে ইতালির সবচেয়ে সফল ও ব্যপকভাবে সমর্থিত ক্লাব জুভেন্টাস।
পুরো মৌসুমে দলের বাজে পারফরমেন্সে আলেগ্রির ভবিষ্যত নিয়েও আলোচনা শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যেই আলেগ্রি নিজেই ইঙ্গিত দিয়েছেন মৌসুম শেষে জুভেন্টাসের সাথে তার সম্পর্কের অবসান হতে যাচ্ছে। এ সম্পর্কে কাল ম্যাচ শেষে আলেগ্রি বলেছেন, ‘আমি হয়তোবা আগামী মৌসুমে এখানে থাকছি না। কারন গণমাধ্যম ইতোমধ্যেই আমাকে ছাঁটাই করে দিয়েছে। আমরা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছি এবং একটি শিরোপাও জিতেছি। আমাদের যা করার প্রয়োজন ছিল সবই আমরা করেছি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার লক্ষ্য পূরণ করেছি। এই কাপ শিরোপা জয়ের জন্য ছেলেরা কঠোর পরিশ্রম করেছে।’
১৯৬৩ সালের পর প্রথম বড় কোন শিরোপা জয়ের স্বপ্ন নিয়ে মাঠে নেমেছিল আটালান্টা। ঐতিহ্যগতভাবে প্রাদেশিক একটি ক্লাবের জন্য আটালান্টার এবারের মৌসুমটা দারুন কেটেছে। যদিও কাল দুর্দান্ত ভাবে গোছানো জুভেন্টাসের রক্ষনভাগকে ভাঙ্গা সক্ষম হয়নি গিয়ান পিয়েরো গাসপেরিনির দলের। আক্রমনাত্মক কৌশলে সবসময় খেলা আটালান্টাকে কাল টার্গেটে একটিও শট নিতে দেয়নি জুভেন্টাসের রক্ষনভাগ। ম্যাচ শেষের ১০ মিনিট আগে আদেমোলা লুকমানের শট পোস্টের একেবারে নীচে লেগে ফেরত আসলে হতাশ হতে হয় আটালান্টাকে। এটাই তাদের একমাত্র ভাল সুযোগ ছিল।
আটালান্টা এখন সিরি-এ লিগের মাধ্যমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জায়গা নিশ্চিতের বিষয়টিতে গুরুত্ব দিবে। একইসাথে আগামী সপ্তাহে ইউরোপা লিগের ফাইনালে ডাবলিনে বায়ার লেভারকুসেনের মুখোমুখি হবে বারগামো ক্লাবটি। ইউরোপীয়ান কোন আসরে এটাই তাদের প্রথম ফাইনাল।
গাসপেরিনি বলেছেন, ‘আমরা এমন একটি দলের বিপক্ষে আজ মাঠে নেমেছিলাম যারা নির্দিষ্ট একটি কৌশলে ফুটবল খেলতে ভালবাসে। একইসাথে তাদের রক্ষনভাগও বেশ শক্তিশালী। আমি মনে করিনা আজ আমরা খুব একটা বাজে খেলেছি। তারা আমাদের এর থেকে ভাল খেলতে দেয়নি।
চার মিনিটে আন্দ্রে ক্যামবিয়াসোর পাসে মৌসুমের ১৮তম গোলে ভøাহোভিচ জুভেন্টাসকে এগিয়ে দেন। বিরতির পর পাঁচ মিনিটে লুকমানের ডিফ্লেকটেড শট অল্পের জন্য পোস্টের ঠিকানা খুঁজে পায়নি। ৬৫ মিনিটে জুভন্টাসের ব্যবধান দ্বিগুন করতে ব্যর্থ হন ভøাহোভিচ। ফেডেরিকো চিয়েসার পাসে ২৪ বছর বয়সী এই সার্বিয়ার দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে পোস্টের কাছাকাছিও গিয়েছিলেন। কিন্তু তার শটটি রুখে দেন গোলরক্ষক মার্কো কারনেশি। ম্যাচ শেষের ১৭ মিনিট আগে আবারো কামবিয়াসোর পাসে নিখুঁত হেডে ভøাহোভিচ বল জালে জড়িয়েছিলেন। কিন্তু এবার অফসাইডের কারনে গোলটি বাতিল হয়ে যায়।
ম্যাচের একেবারে শেষভাগে লেফারি ফ্যাবিও মারেসার সাথে ডানিলোর ফাউল নিয়ে বিতন্ডায় জড়িয়ে লাল কার্ড দেখতে হয়েছে চাপে থাকা আলেগ্রিকে। (বাসস/এএফপি)