গাজা যুদ্ধের প্রতিবাদে ইসরায়েলিরা মালদ্বীপে নিষিদ্ধ

মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট রোববার বলেছেন, তারা ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের এ দেশে ইসরায়েলি নাগরিকদের নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে। দেশটি পর্যটকদের কাছে খুবই জনপ্রিয়। এদিকে তারা ফিলিস্তিনের প্রতি সংহতি জানাতে জাতীয় সমাবেশেরও ঘোষণা দিয়েছে।
মালদ্বীপ নির্জন বালুকাময় সাদা সমুদ্র সৈকতের জন্য পরিচিত এবং তা পর্যটকদের কাছে অত্যন্ত আকর্ষণীয়।
নতুন এ নিষেধাজ্ঞা কবে নাগাদ কার্যকর করা হবে সে ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু উল্লেখ না করে এক বিবৃতিতে প্রেসিডেন্টের দপ্তরের এক মুখপাত্র বলেন, মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুইজ্জু ইসরায়েলি পাসপোর্টের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
মুইজ্জু ফিলিস্তিনের প্রতি সংহতি জানানোর অংশ হিসেবে একটি জাতীয় তহবিল সংগ্রহে প্রচারণা চালানোরও ঘোষণা দিয়েছেন যার নাম ‘মালদ্বীপিয়ানস ইন সলিডারিটি উইথ প্যালেস্টাইন।’য়েলি পর্যটকদের উপর আরোপ করা আগের নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছিল এবং ২০১০ সালে দেশটির সাথে ফের সম্পর্ক স্থাপনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিল।
২০১২ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদের পতনের পর ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিককরণের প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছিল।
মালদ্বীপের বিরোধী দল ও সরকারি মিত্ররা গাজার বিরুদ্ধে প্রতিবাদের অংশ হিসাবে ইসরায়েলিদের নিষিদ্ধ করার জন্য মুইজ্জুকে চাপ দিয়ে আসছে।
সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, চলতি বছরের প্রথম চার মাসে মালদ্বীপে যাওয়া ইসরাইলিদের সংখ্যা কমে ৫২৮ জনে দাঁড়িয়েছে। আগের বছরের তুলনায় এ সংখ্যা ৮৮ শতাংশ কম। (বাসস ডেস্ক)