নরসিংদীর চরাঞ্চলে বজ্রপাতে মা ছেলেসহ নিহত ৩

জেলা সদর উপজেলার দুর্গম চলাঞ্চল আলোকবালীর মাঠে আজ ধান কাটতে গেলে বজ্রপাতের ঘটনায় মা-ছেলেসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছে আরও দুইজন। আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে হতাহতের ঘটনা ঘটে।
নিহতারা হলেন- আলোকবালী ইউনিয়নের মধ্যপাড়া গ্রামের কামাল মিয়ার স্ত্রী শরিফা বেগম(৪৮)ও তার ছেলে ইমন(১২)এবং রায়পুরা উপজেলার বাঘাইকান্দি গ্রামের হাতেম মিয়ার ছেলে কাইয়ুম মিয়া(২৫)। কাইয়ুম তার নানার বাড়ি আলোকবালীতে বেড়াতে এসে মামার সঙ্গে ধান কাটতে গিয়ে বজ্রপাতে তার মৃত্যু হয়।
পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানায়, সকালে  কামাল মিয়া, তার স্ত্রী শরিফা ও ছেলে ইমনসহ বেশ কয়েকজন জমিতে ধান কাটছিলেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে হঠাৎ বজ্রপাতসহ বৃষ্টিপাত শুরু হয়। ওই সময় শরিফা, তার ছেলে ইমন ও কামালসহ পাঁচজন আহত হন। তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে ইমন,শরিফা ও কাইয়ুম মারা যায়। কামাল মিয়া ও রহমত আলী নামে আহত দুইব্যক্তিকে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
নরসিংদী সদর মডেল থানার ওসি তানভীর আহমেদ বজ্রপাতে তিনজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন চরাঞ্চল আলোকবালীতে ধান কাটার সময় বজ্রপাতে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে দুইজন। তাদেরকে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। (বাসস)